সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

cold-water-warm-water.jpg

গরমে ঠান্ডা নাকি গরম পানি খাবেন?

গরমকালে আমাদের আরো বেশি পানির প্রয়োজন পড়ে। এসময় আমরা ঠান্ডা পানির খোজ করি। অনেকে হোটেল কিংবা বাসার রেফ্রিজারেটরে পানি রেখে ঠান্ডা করে পান করি।

পানি আমাদের শরীরের জন্য খুবই জরুরী। পানি পান ব্যতীত জীবন কল্পনা করা যায় না। না খেয়ে হয়ত কিছুদিন বাঁচা যাবে কিন্তু পানি ছাড়া সম্ভব নয়।

গরমকালে আমাদের আরো বেশি পানির প্রয়োজন পড়ে। এসময় আমরা ঠান্ডা পানির খোজ করি। অনেকে হোটেল কিংবা বাসার রেফ্রিজারেটরে পানি রেখে ঠান্ডা করে পান করি। এখন আমরা জানবো গরম নাকি ঠান্ডা পানি কোনটা শরীরের জন্য অধিক ভাল অর্থাৎ কোন পানি পান করব।

ঠান্ডা পানি বনাম গরম পানি:
পুরাতন আয়ুর্বেদিক শাস্ত্রমতে, ঠান্ডা পানির চেয়ে গরম পানি অধিক ভাল। এর কারণ হল আমাদের শরীরের স্বাভাবিক তাপমাত্রা ৩৬.৯ ডিগ্রী সেলসিয়াস। যদি আমরা খুব বেশি ঠান্ডা পানি পান করি তবে শরীরের তাপমাত্রা স্বাভাবিক করতে শরীরকে অধিক কাজ করতে হয়। যদি ২০-২২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার পানি পান করি তবে তার শীতলতা দ্রুত শরীরের ভিতর প্রবেশ করে এবং বিভিন্ন অঙ্গের কাজে বিঘ্ন ঘটায়।

কেন ঠান্ডা পানি পান করবেন না:
যখন আমরা ঠান্ডা পানি পান করি তখন সেই পানিকে শরীরের ভিতর গরম (স্বাভাবিক তাপমাত্রায় নিতে) করতে শরীর থেকে বেশি শক্তি নির্গত হয়। তাছাড়া এজন্য প্রচুর রক্ত সঞ্চালন দরকার হয়। এই পানি আমাদের পেটের পাচক রসের তাপমাত্রা কমিয়ে দেয়। ফলে হজমশক্তি হ্রাস পায়। বৃহদন্ত্রকে (Large intestine) সংকুচিত করে। তাই কোষ্ঠকাঠিন্য হতে পারে। দীর্ঘদিন অধিক ঠান্ডা পানি পান করলে পাইল্স এর সমস্যা বৃদ্ধি পেতে পারে।

গরম পানি অধিক স্বাস্থ্যকর:
ডাক্তাররাও সকালে উঠে হালকা গরম পানি পানের পরামর্শ দেন। গরম পানি শরীরের ভিতরটা পরিষ্কার করতে সক্ষম। যদি কারো পরিপাক ক্রিয়া ভাল না হয় তবে তার প্রত্যহ দুইবার গরম পানি পান করা উচিৎ। সকালে গরম পানি পান করলে শরীরের ভিতরকার টক্সিন বের হয়ে যায়। ফলে সকল দৈহিক সিস্টেম পরিষ্কার হয়। শরীরের ওজন কমে, শরীরের ব্যথা দূর হয় এবং পেটের অন্যান্য সমস্যাও দূর হয়।

এতক্ষণ আমরা জানলাম আমাদের গরম পানি পান করতে হবে। কিন্তু অধিক গরম পানি পান করা যাবে না। প্রচুর পরিমাণে পানি পান করা উচিৎ যা খুব বেশি ঠান্ডা কিংবা খুব বেশি গরমও হবে না। এই গরমে সুস্থ্য থাকুন, ভাল থাকুন। আনন্দে কাটুক প্রতিটি মূহুর্ত। এই কামনায় আজ শেষ করছি।

-
লেখক: ইন্টার্ণশীপ শিক্ষার্থী, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়।

এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

Water, drinkable, warm, Cold, health, fitness